৪-১ করেই শেষ করল বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ : মিরপুরের উইকেট যেন এই সিরিজের প্রতীক হয়ে থাকল। বোলাররা মুড়ি মুড়কির মতো উইকেট নিচ্ছেন আর ব্যাটসম্যানরা রানের জন্য সংগ্রাম করছেন। পঞ্চম ও শেষ টি-টোয়েন্টিও এর ব্যতিক্রম হল না। বাংলাদেশের ১২৩ রানের জবাবে ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার মিছিলে অস্ট্রেলিয়া অলআউট হয়েছে ৬২ রানে। ৬০ রানে ম্যাচ জিতেছে ব্যবধানটা ৪-১ করেছে বাংলাদেশ।

নিজেদের সর্বশেষ সিরিজে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ৪ ওভারে ৫০ রান দিয়েছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম চার ম্যাচেই ছিলেন না একাদশে। চার ম্যাচ পর একাদশে ফিরেই সাইফউদ্দিন এই সিরিজে বোলারদের জয়গানই গাইলেন। আজ ৩ ওভার বল করে ১২ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট।

আজও শুরতেই উইকেট হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে আউট হয়েছেন আগের ম্যাচের নায়ক ড্যান ক্রিস্টিয়ান। বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদের বলে বোল্ড হয়ে ফিরেছেন ৩ বলে ৩ রান করে। এরপরই শুরু হয় অস্ট্রেলিয়ান ব্য্যটসম্যানদের যাওয়া আসার মিছিল। চতুর্থ ওভারে নাসুমের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে ফিরেছেন এই সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার সেরা ব্যাটসম্যান মিচেল মার্শ (৪)। এক প্রান্তে আশা দেখিয়েছিলেন অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড। অষ্টম ওভারে সাকিবের বলে বোল্ড হয়ে ২২ বলে ২২ রান করে ফেরেন তিনিও। সাকিবের স্পিনের সামনে আর দাঁড়াতেই পারেননি অ্যাগার-টার্নাররা। ৩.৪ ওভারে মাত্র ৯ রাঙ দিয়ে চার উইকেট নিয়েছেন সাকিব।

এর আগে আগের দুই ম্যাচের মতো টস জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ওপেনিং জুটির দুর্দশা কাটাতে সৌম্যকে চারে নামিয়ে নাঈমের সঙ্গে জুটি বাধেন মেহেদী হাসান। পরিবর্তের ফলও এসেছিল হাতেনাতে। আগের চার ম্যাচে (১৫,৯, ৩,২৪) রানের ওপেনিং জুটির পর আজ ৪২ রানের জুটি গড়েছেন নাঈম-মেহেদী। দুজনের দারুণ জুটির পরও বাংলাদেশের স্কোর ১২২ রানের বেশি আগায়নি। এ জন্য অবশ্য মিরপুরের স্লো উইকেটের সঙ্গে ব্যাটসম্যানদের দায়ও আছে।

প্রথমটা শুরু ওপেনার মেহেদীকে দিয়ে। বাংলাদেশ ইনিংসের পঞ্চম ওভারে আউট হয়েছেন এই অলরাউন্ডার। এই ওভারে বলের লাইন খুঁজে পেতেই হিমশিম খেয়েছেন অ্যাস্টন অ্যাগার। ওয়াইডও দেন তিনটি। থেমে আসা বলটাতে আগেভাগে শটড় খেলতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন মেহেদী (১৩)। শুরুতে দুই অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা আর টার্নারকে দারুণ স্বছন্দে খেললে সময়ের সঙ্গে ছন্দ হারিয়েছেন আরেক ওপেনার নাঈম। মূলত পেসাররা আক্রমণে আসার পর আর হাতে খুলে খেলতে পারেননি নাঈম।

মিরপুরের স্লো উইকেটের সুবিধা দারুণভাবে কাজে লাগিয়েছেন নাথান এলিস-ড্যান ক্রিস্টিয়ানরা। ক্রিস্টিয়ানের সেই স্লো বোলিং বৈচিত্র্যের কাছে হার মেনে ২৩ বলে ২৩ রান করে ফেরেন নাঈম। এরপর ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার মিছিলে ছিলেন সাকিব (১১), মাহমুদউল্লাহ (১৯)। সৌম্য সরকার যেন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন। ভালো কিছুর আশা জাগিয়ে ক্রিস্টিয়ানের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফিরেছেন ১৮ বলে ১৬ রান করে। অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের দারুণ নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শেষ পর্যন্ত ১২২ রানে থেমেছিল বাংলাদেশের ইনিংস।

এই বিভাগের আরো খবর

ইসলামপুরে শিক্ষার্থীদের টাকা ও উদ্যোক্তাদের মাঝে চেক বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : জামালপুরের ইসলামপুরে এতিম,মেধাবী,অতিদরিদ্র শিক্ষার্থীদের নগদ টাকা ও করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ পল্লী উদ্যোক্তদের মাঝে প্রণোদনার চেক বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার (২৩ আগস্ট )...

আল্লাহতায়া নিজ হাতে প্রধানমন্ত্রীকে বাঁচিয়ে রেখেছেন — ধর্মপ্রতিমন্ত্রী

সাহিদুর রহমান : ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান বলেছেন, ১৯বার হত্যা চেষ্টার পরেও আল্লাহ তায়ালা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিজ হাতে বাঁচিয়ে রেখেছেন দেশবাসীকে...

১৫আগস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংসতম হত্যাকান্ড ঘটেছিল —তথ্য প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, ১৫আগস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে নৃশংসতম হত্যাকান্ড ঘটেছিল,মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে নির্মূল করে পাকিস্তানী ভাবাধারায় সাম্প্রদায়িক রাজনীতি...

জনপ্রিয় সংবাদ

জামালপুরে কল লন্ডির শুভ উদ্ভোধন

নিজেদের শাড়ি,কাপড়সহ প্রয়োজনীয় বস্ত্রাদি সহজেই পরিস্কার পরিছন্ন করার লক্ষে জামালপুরে কল লন্ডির শুভ উদ্ভোধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধায়...

জামালপুরে যুবককে গলা কেটে হত্যা

জামালপুরের মেলান্দহে বুলু মন্ডল (২8) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ফুলকোচা ইউনিয়নের রেখিরপাড়া এলাকায়...

৭২২ কোটি টাকা ব্যয়ে জামালপুরে হচ্ছে ‘শেখ হাসিনা নকশিপল্লী’

নকশি উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে। হস্তশিল্প, কারুশিল্প, কুটিরশিল্প, তাঁতিদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। করা হবে তাদের দারিদ্র্য বিমোচন। সেই সঙ্গে নকশি শিল্পের টেকসই...

জামালপুরের বিষমুক্ত টমেটো যাচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম

জামালপুরের ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীর বিস্তৃর্ণ চরে এ বছর ব্যাপক হারে টমেটোর চাষ হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় টমেটোর ফলনও হয়েছে ভালো। গেল...