জামালপুরে দৃষ্টি নন্দন নগর স্থাপত্য শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী

নিজস্ব প্রতিবেদক : জামালপুর জেলা শহরের প্রাণকেন্দ্র দয়াময়ী এলাকায় সাড়ে ৮ একর জমির উপর ২২৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকা ব্যায়ে তোলা হচ্ছে দৃষ্টি নন্দন নগর স্থাপত্য শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী। বিনোদন ও সংস্কৃতি চর্চাসহ ইতিহাস ঐতিহ্যকে সংরক্ষণ করতে শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লী প্রকল্পটি প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

সূত্র জানায়, প্রকল্পটির মূল ব্যয় ছিল ১২৬ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এখন প্রথম সংশোধনী প্রস্তাবে ১০২ কোটি ৭৭ লাখ টাকা বাড়িয়ে মোট ব্যয় ২২৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ব্যয় বেড়েছে ৮১ দশমিক ১৮ শতাংশ। এছাড়া ২০১৬ সালের মার্চ থেকে ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের লক্ষ্য ছিল। পরবর্তী সময়ে ব্যয় বৃদ্ধি ছাড়াই এক বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়।

কিন্তু এতেও বাস্তবায়ন শেষ না হওয়ায় ব্যয় বৃদ্ধি ছাড়া আরও একবছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মেয়াদ বাড়ানো হয়। এবার প্রথম সংশোধনীতে এক বছর চার মাস মেয়াদ বাড়িয়ে ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত ধরা হয়েছে। আর শুরু থেকে গত জুন মাস পর্যন্ত প্রকল্পটির অনুকূলে ব্যয় হয়েছে ৯৫ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

পিইসি সভায় প্রকল্পের আওতায় নতুন প্রস্তাবিত ওয়াটার ফাউন্টেন, ৩-ডি সিনেপ্লেক্স, ৯-ডি থিয়েটার এবং নাগরদোলা অঙ্গ চারটি বাদ দিয়ে ডিপিপি (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব) পুনর্গঠন করতে বলা হয়। ২০২২ সালের জুন মাসে শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লীর কাজ সম্পন্ন করতে এগিয়ে চলছে নির্মাণ কাজ।

পুরো সাংস্কৃতিক পল্লীকে সাজানো হচ্ছে নানা দৃষ্টি নন্দন আর্কিটেকচারাল ডিজাইনে। বাস্তবায়িত হলে এই সাংস্কৃতিক পল্লী জেলার সব সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড ও বিনোদনের প্রাণকেন্দ্র হয়ে উঠবে। এটি হবে দেশসেরা একটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। এখানে থাকবে ২০ হাজার বর্গফুটের আন্ডারগ্রাউন্ড মিউজিয়াম। মিউজিয়ামের দুটি ফ্লোর জুড়ে জেলার ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস প্রতিফলিত হবে। থাকবে বাঙালি জাতির ইতিহাস-ঐতিহ্যের সবকিছু। এখানে থাকবে মুক্তিযুদ্ধের বিস্তৃত ইতিহাস। আন্ডারপ্লাস মিউজিয়ামের ছাদের অংশে থাকবে খোলা শহীদ মিনার। শহীদ মিনারের ছাদ ও দেয়ালে থাকবে শহীদদের মোরাল। শহীদ মিনারে যাওয়ার রাস্তা হবে সুদৃশ্য।

অসুস্থ মানুষের শহীদ মিনারে যাওয়ার জন্য থাকবে বিশেষ ব্যবস্থা। শহীদ মিনার ও মিউজিয়ামের পর থাকবে খোলা মাঠ, থাকবে সুদৃশ্য বৃত্তাকার লেক। লেকের চারপাশে ওয়াকওয়ে। লেকের পশ্চিমে থাকবে মুক্ত থিয়েটার মঞ্চ। এছাড়াও পল্লীর মূল কালচারাল ভবন হবে ১০ তলা। অত্যাধুনিক সব সুবিধাসহ এই ১০ তলা ভবনের গ্রাউন্ড ফ্লোর হবে পার্কিং এরিয়া। দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় হবে কনভেনশন হল। এ ছাড়া তৃতীয় তলায় হবে উন্নত মানের রেস্টুরেন্ট। চতুর্থ তলা থেকে দশম তলা পর্যন্ত বরাদ্দ থাকবে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের জন্য। সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো এখানে নিয়মিত সংস্কৃতিচর্চা ও রিহার্সেলের সুযোগ পাবে।

এদিকে গৌরীপুর কাচারী মাঠের পূর্বপাশে হবে আটতলা বাণিজ্যিক ভবন। বাণিজ্যিক ভবনে দেশীয় পণ্য প্রসারে প্রাধান্য দেওয়া হবে। পুরো পল্লীতে থাকবে নানা ডিজাইনের বাগান, বসার জায়গা, বিনোদন আর অবসর কাটানোর নানা উপকরণ। এখানে থাকবে বৈশাখী মেলাসহ যে কোনো মেলা করার মতো স্পেস। থাকবে রেস্ট হাউস।

ঢাকার বাইরে কোনো জেলা শহরে এমন কেন্দ্র এটিই প্রথম। এটি হবে দেশসেরা অন্যতম একটি সাংস্কৃতিক ও বিনোদন কেন্দ্র এটি এতটাই দৃষ্টিনন্দন হবে যে, শুধু জেলার নয়, এর আকর্ষণ সারা দেশের মানুষকেই টানবে। এখানকার সৌন্দর্য বিমোহিত করবে তাদের।

জামালপুর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেছুর রহমান বলেছেন, শেখ হাসিনা সাংস্কৃতিক পল্লীর নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে। বাকি কাজ এগুচ্ছেনা করোনার জন্য। যে কাজ টুকু আছে আশা করছি নিদ্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সম্পন্ন হবে।

এস আর / শওকত/জামালপুর লাইভ

এই বিভাগের আরো খবর

বকশীগঞ্জে এলএসপিদের মাঝে ইলেক্ট্রিক ডিভাইস বিতরণ

রকিবুল হাসান ,বকশীগঞ্জ(জামালপুর)প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার করে সরকারি-বেসরকারি সেবা নিশ্চিত করতে লোকাল সার্ভিস প্রোভাইডারদের (এলএসপি) মাঝে ইলেক্ট্রিক ডিভাইস (মোবাইল) বিতরণ করা...

বকশীগঞ্জে দুগ্ধদায়ী মা ও শিশুর বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরীক্ষায় হেল্থ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

রকিবুল হাসান ,বকশীগঞ্জ(জামালপুর)প্রতিনিধি : জামালপুরের বকশীগঞ্জে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের আওতায় কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার সহায়তা তহবিল এর আওতায় উপকারভোগীদের চলমান স্বাস্থ্য সেবা জোরদারকরণের লক্ষে বিনামূল্যে...

ইসলামপুরে শিক্ষার্থীদের টাকা ও উদ্যোক্তাদের মাঝে চেক বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : জামালপুরের ইসলামপুরে এতিম,মেধাবী,অতিদরিদ্র শিক্ষার্থীদের নগদ টাকা ও করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ পল্লী উদ্যোক্তদের মাঝে প্রণোদনার চেক বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার (২৩ আগস্ট )...

জনপ্রিয় সংবাদ

জামালপুরে কল লন্ডির শুভ উদ্ভোধন

নিজেদের শাড়ি,কাপড়সহ প্রয়োজনীয় বস্ত্রাদি সহজেই পরিস্কার পরিছন্ন করার লক্ষে জামালপুরে কল লন্ডির শুভ উদ্ভোধন করা হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধায়...

জামালপুরে যুবককে গলা কেটে হত্যা

জামালপুরের মেলান্দহে বুলু মন্ডল (২8) নামে এক যুবককে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার ফুলকোচা ইউনিয়নের রেখিরপাড়া এলাকায়...

৭২২ কোটি টাকা ব্যয়ে জামালপুরে হচ্ছে ‘শেখ হাসিনা নকশিপল্লী’

নকশি উদ্যোক্তা তৈরি করা হবে। হস্তশিল্প, কারুশিল্প, কুটিরশিল্প, তাঁতিদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। করা হবে তাদের দারিদ্র্য বিমোচন। সেই সঙ্গে নকশি শিল্পের টেকসই...

জামালপুরের বিষমুক্ত টমেটো যাচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম

জামালপুরের ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীর বিস্তৃর্ণ চরে এ বছর ব্যাপক হারে টমেটোর চাষ হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় টমেটোর ফলনও হয়েছে ভালো। গেল...